English Version
আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৭:৩৬

মিয়ানমারকে কঠিন 'শাস্তি' ভোগ করতে হবে: আল কায়েদা

অনলাইন ডেস্ক
মিয়ানমারকে কঠিন 'শাস্তি' ভোগ করতে হবে: আল কায়েদা

মিয়ানমারের আরাকান রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলিমদের উপর নির্যাতনের ঘটনায় সুচি সরকারকে কড়া হুশিয়ারি দিল মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আল-কায়েদা। আল কায়েদা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, 'মিয়ানমারকে রোহিঙ্গা নির্যাতনের জন্য কঠিন ''শাস্তি'' ভোগ করতে হবে।


লন্ডনভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা রয়টার্স এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আল-কায়েদা মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিমদের প্রতি সমর্থনের আহ্বান জানিয়ে বলে, নিরাপত্তাহীনতার কারণে এরই মধ্যে প্রাণ বাচাঁতে ৪ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। আর মিয়ানমারের জন্য সতর্কবাণী হলো তাদেরকে এ 'অপরাধের' জন্য কঠিন 'শাস্তি' ভোগ করতে হবে।

গত ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইনে দেশটির পুলিশের ৩০টি তল্লাশি চৌকি ও একটি সেনা ক্যাম্পে হামলা চালায় রোহিঙ্গা বিদ্রোহীরা। এ হামলার জেরে রাখাইনে দেশটির সেনাবাহিনীর রোহিঙ্গা বিরোধী ক্লিয়ারেন্স অপারেশনে ৩ লাখ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢুকেছে।

আল-কায়েদা এক বিবৃতিতে মিয়ানমারের মুসলিমদেরকে ত্রাণ, অস্ত্র ও সামরিক সমর্থন দিয়ে সহায়তায় এগিয়ে আসতে বিশ্বের মুসলিমদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

 


অন্যদিকে জঙ্গি কার্যক্রম পর্যবেক্ষণকারী মার্কিন গ্রুপ সাইট ইনটেলিজেন্স আল-কায়েদার বিবৃতির বরাত দিয়ে বলছে, আমাদের মুসলিম ভাইয়েরা বর্বর হামলার সম্মুখীন হয়েছে...শাস্তি ছাড়া আমরা এই বিষয়টি ছেড়ে দেবো না। ‘মিয়ানমার সরকার আমাদের মুসলিম ভাইদেরকে যে ধরনের পরিস্থিতিতে ফেলেছে, তাদেরকেও একই ধরনের পরিস্থিতি ভোগ করতে হবে। ’

এদিকে, মিয়ানমারের প্রধান প্রধান শহরগুলোতে বোমা হামলা হতে পারে বলে সতর্কবার্তা দিয়েছে সরকার। এর মাঝেই আল-কায়েদা দেশটিকে কঠিন শাস্তি পেতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিল।

সূত্র : রয়টার্স।