English Version
আপডেট : ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৬:২২

নিজেই নিজের যমজ !

অনলাইন ডেস্ক
নিজেই নিজের যমজ !
বিরল সমস্যায় আক্রান্ত টেইলর মাহল একজন সঙ্গীত শিল্পী

চিকিৎসাবিজ্ঞানের বিরল এক সমস্যায় পড়েছেন মার্কিন তরুণী টেইলর মাহল। তিনি নিজেই যেন তার যমজ বোন।
অর্থাৎ তার দেহেই যেন তার যমজ বোন বাস করছেন! বিরল এ রোগ নিয়ে বেশ সমস্যায় পড়ছেন মাহল।
মাহল একজন মার্কিন সঙ্গিতশিল্পী ও বিনোদন জগতের কর্মী। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যে তার বাস।
অত্যন্ত বিরল এ সমস্যা বিশ্বে যে একেবারেই নেই, তা নয়। মাহল বলেন, বিশ্বে তার মতো এ ধরনের রোগী মিলেছে মাত্র একশর মতো।
মাহলের সমস্যাটির নাম শিমেরিজম (chimerism)। এর অর্থ তিনি তার যমজ বোনের সঙ্গে একই দেহ ধারণ করেছেন।
কিন্তু কিভাবে তার দেহে এই বিরল সমস্যা প্রকাশ হলো? এ প্রসঙ্গে মাহল বলেন তিনি যখন খুব ছোট, তখনই তার দেহের দুই দিক দুই রঙে ধরা পড়ে বন্ধুদের কাছে। এরপর অদ্ভুত নানা শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে থাকে।
চিকিৎসকরা জানান, তার দেহের দুটি রং কোনো জন্মদাগ নয় বরং দুটি দেহ থাকার লক্ষণ। আর একই দেহে দুটি দেহ থাকার কারণে দেহের একাংশ অন্য অংশের সঙ্গে প্রায়ই সমস্যা তৈরি করে। একে অটোইমিউন সমস্যা বলা হয়।
মাহল বলেন, ‘আমার অটোইমিউন সমস্যা বড় হয়ে দেখা দিতে থাকে ছোটবেলাতেই। কিন্তু সে সময় কেন এ সমস্যা হচ্ছে, তা নিয়ে খুবই বিভ্রান্তিতে পড়তে হয়। ’
মাহলের বয়স যখন ২০-এর মাঝামাঝি তখন এ সমস্যার ব্যাখ্যা মেলে। চিকিসকরা বলেন, তার দেহে রয়েছে দুটি ভিন্ন সেটের ডিএনএ। আর এ কারণে দেহের একাংশ অন্য অংশকে শত্রু মনে করে। ফলে দেহের রোগপ্রতিরোধ ব্যবস্থাও ভিন্নভাবে কাজ করে।
বাড়তি সমস্যা যেন না হয় সেজন্য মাহলকে নিয়মিত প্রোবায়োটিক ও ভিটামিন সাপ্লিমেন্ট খেতে হয়। এছাড়া সতর্কভাবে সুস্থ জীবনযাপনও করতে হয় তাকে।